সবার জন্য বিনামূল্যে করোনা টিকার দাবিতে সরব করোনা মঞ্চ

ভ্যাকসিন নিয়ে উদ্বিগ্ন সাধারণ মানুষের সই সংগ্রহের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী ও মুখ্যমন্ত্রীর দ্বারস্থ হতে চলেছে করোনা মঞ্চ। সারাদেশে করোনা মহামারিতে সাধারণ মানুষ আজ দিশেহারা। কোভিড ভ্যাকসিন শুরু হয়েছে, তবে প্রথম সারিতে যারা প্রতিনিয়ত  কাজ করেন তাদের এই টিকা দেবার কাজ চলছে। স্বাস্থ্যকর্মীদের পুলিশকর্মীদের এবং প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের টিকাকরণের সময়সীমা লেগে যাবে প্রায় ছমাস বলেই আন্দাজ করছেন তারা। এরপরে থাকছে ভোট কর্মী, ভোটের নিরিখে হয়তো তাদের অগ্রাধিকার! অথচ সাধারণ মানুষ থেকে যাচ্ছে ব্রাত্য। সাধারণের জন্য তাও স্পষ্ট নয় সরকারের পক্ষ থেকে।

এইরকমই দুশ্চিন্তায় থাকা কিছু মানুষের  কথা মাথায় রেখে  শান্তিপুর করোনা প্রতিষেধক মঞ্চের আহবানে সাধারণ মানুষের স্বাক্ষর গ্রহণ কর্মসূচিতে পথে নামল ওই স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যরা। রবিবার বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের কর্মকর্তারা জানান এই গণস্বাক্ষর অভিযানের মাধ্যমে সকলে যাতে বিনামূল্যে কভিড ভ্যাকসিন পান তার জন্য এই অভিযান। উদ্যোক্তাদের পক্ষ্ থেকে জানানো হয় এই গণস্বাক্ষর এর একটা প্রতিলিপি প্রধানমন্ত্রীর কাছে এবং অন্য আরেকটি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর কাছে তারা পাঠাবেন। ফলে উপর থেকে সবুজ সংকেত পাওয়ার অপেক্ষায় পথ চেয়ে বসে সাধারন মানুষ এবং শান্তিপুর করোনা প্রতিষেধক মঞ্চের সদস্যরা। লকডাউনের সময়  বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার লোকজন লকডাউনে অসহায় দুস্থ এবং করোন আক্রান্ত পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছিল। সেই সবাই মানুষ যাতে রাস্তাতে ঘোরাফেরা করে সেই কারণে স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার লোকজন তো দেখা গিয়েছিল বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জায়গায় পুলিশ প্রশাসনকে খাবার দিতে দেখা যায় বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সদস্যদের।

শুধু স্বাস্থ্যকর্মী বা পুলিশ নয় করোনার সময়তেই তারা মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। তারা সরকারের কাছে আবেদন করছে তাদেরকে জানো করোনা টিকা দেওয়া হয়। পথসভার মধ্য দিয়ে প্রধানমন্ত্রী, রাজ্যপাল ও মুখ্যমন্ত্রীর কাছে তার একটা আবেদনপত্র পাঠাবে তাতে অবিলম্বে বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা দের করোনা টিকা দেওয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *