দাবানলে উজার হয়ে যাচ্ছে তুরস্কের গ্রামের পর

তুরস্কের দাবানল ক্রমশই ভয়াবহ আকার নিচ্ছে। বিপর্যস্ত স্থানীয় বাসিন্দারা। পরিস্থিতি মোকাবিলায় হেলিকপ্টার তেকে জল দিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।

ক্রমশই ভয়াবহ আকার নিচ্ছে তুরস্কের দাবানল। দুদিন ধরে দাউ দাউ করে জ্বলছে বিস্তীর্ণ বনভূমি ও সংলগ্ন এলাকা। দেশটির দুর্যোগ মোকাবিলা সংস্থা আফাদ (AFAD) ও কৃষিমন্ত্রী জানিয়েছেন এখনও পর্যন্ত বন্য আগুনে তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। প্রায় বনভূমি সংলগ্ন এলাকা থেকে সরিয়ে আনা হয়েছে স্থানীয় বাসিন্দাদের। পরিস্থিতি মোকাবিলায় সবরকম চেষ্টা করা হচ্ছে। ছোটবড় সবমিলিয়ে প্রায় ৬০ পৃথক দাবানলের মোকাবিলা করতে হচ্ছে স্থানীয়দের।

দাবানলের আগুন ইতিমধ্যেই ছড়িয়ে পড়েছে সংলগ্ন গ্রামগুলিতে। কয়েক ডজন গ্রাম উজাড় হয়ে গেছে। হোটগুলিও আগুনের গ্রাসে চলে গেছে। প্রাকৃতিক এই দুর্যোগের সামনে রীতিমত অসহায় মানুষ। ভূমধ্য সাগরীয় রিসর্ট এন্টালিয়া থেকে ৭৫ কিলোমিটার দূরে দাবানলের আগুন নেভাতে হেলিকপ্টার থেকে জল দেওয়া হচ্ছে।

রিসর্ট শহর নামে পরিচিত আন্তেলিয়া জেলা। এই জেলা প্রায় ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে। জেলার ১৮টি গ্রাম আর জেলা সরদও সনিয়ে নিয়ে যেতে বাধ্য হয়েছে প্রশাসন। দাবানলেপ গ্রাস থেকে বাঁচাতে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে স্থানীয় হাসপাতালটিও। মানবগেট এলাকা খালি করার সময় অগ্নিকাণ্ডের জেরে তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। যার মধ্যে একজন ছিলেন ৮২ বছরের বৃদ্ধ। জানিয়েছে তুরস্কের কৃষি মন্ত্রী। স্থানীয় প্রশাসন জানিয়েছে তুরস্কের এন্টালিয়া শহর থেকে ৭৫ কিলোমিটার পূর্বে মানবগেটের আশপাশের এলাকা কালো ধোঁয়ায় ঝাকা পড়ে রয়েছে। গোটা এলাকায় তাপমাত্রা বেড়েছে।

তুরস্ক প্রশাসন জানিয়েছে চলতি সপ্তাহে এজিয়ান আর ভূমধ্যসাগরীয় উপকূলবর্তী ১৭টি প্রদেশের ৬০টিরও বেশি দাবানল ছড়িয়ে পড়েছে। কী করে এই আগ্নিকাণ্ড তা জানতে চেয়েছেন রাষ্ট্রপতি। তুরস্কের বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের পক্ষ থেকে জানান হয়েছে, এখনও পর্যন্ত মাত্র ৩৬টি দাবানল আয়ত্বে আনা হয়েছে। ১৭টি দাবানল রীতিমত ভয়ঙ্কর আকার নিয়েছে। প্রাকৃতিক এই দুর্যোগে আহতে হয়েছেন ১৪০ জন। প্রত্যেকেরই চিকিত্‍সা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *