বিজেপির মেদনীপুর জেলা সভাপতির বিরুদ্ধেই দুর্নীতির অভিযোগে পোস্টারে ছয়লাপ, আরো জোরদার গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব!

নিউজ ডেস্ক : বিজেপিতে আরও জোরদার হলো গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব। যতই তৃণমূল থেকে বিভিন্ন নেতাকর্মীরা বিজেপিতে যোগদান করছেন এবং তারা বিজেপির নেতৃত্বের সামনের সারিতে চলে আসছেন ততই ক্ষোভ দানা বাঁধছে আগে থেকেই বিজেপির সঙ্গে থাকা নেতাকর্মীদের মধ্যে। আর তা থেকেই সৃষ্টি হচ্ছে অন্তর্কলহের।

এবার মেদিনীপুর শহরে, মেদিনীপুর জেলা বিজেপি সভাপতি সুমিত দাস এর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ করে পোস্টার লাগানো হলো শহরজুড়ে। পোস্টার লাগিয়েছেন বিজেপি কর্মীরাই। সারা শহরে লাগানো এই পোস্টার গুলিতে অভিযোগ করা হয়েছে সুমিত দাস অর্থের বিনিময়ে বিজেপিতে বিতরণ করছেন। পোস্টারের মিছিল লেখা ছিল “বিজেপি সৎ এবং সক্রিয় কর্মীগণ।”

আগে একাধিকবার বিভিন্ন ইস্যুতে জেলা সভাপতির বিরুদ্ধে পোস্টারিং করেছে বিজেপিরই একাংশ। বিধানসভা নির্বাচনের মুখে ফের একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি। এ বিষয়ে জেলা বিজেপি সভাপতি সমিত দাশ বলেছেন, “যাঁরা পোস্টারিং করছেন তাঁরাই এব্যাপারে বলতে পারবেন। বিজেপি একটি সুশৃঙ্খল দল। এখানে চাইলেই পদ পাওয়া যায় না। তার জন্য নির্দিষ্ট প্রক্রিয়া রয়েছে।” সমিতবাবুর অভিযোগের তির মূলত তৃণমূলের দিকে। বিজেপির একাংশের দাবি এই ঘটনার নেপথ্যে রয়েছে পিকের টিম। তবে যেহেতু এমন ঘটনা ইতিপূর্বে দেখা গেছে তাই এর পিছনে যে তৃণমূল কংগ্রেসের হাতে রয়েছে তা জোর দিয়ে কেউ বলতে পারে না।

শুভেন্দু অধিকারীর বিজেপিতে যোগদানের পর তার সঙ্গে বেশ কিছু নেতা তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেন। তাদের মধ্যে একজন রমাপ্রসাদ গিরি বর্তমান সময়ে মেদিনীপুর বিজেপির অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ এবং প্রভাবশালী নেতায় পরিণত হয়েছেন এই ক্ষুদ্র সময়ে, যা আহত করেছে আদি বিজেপি কর্মীদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *