দার্জিলিং এ বিজেপির সব সম্ভাবনা শেষ করে তৃণমূলের হাত ধরলেন বিমল গুরুং

নিউজ ডেস্ক : গত বেশ কয়েকটি নির্বাচনে দার্জিলিং এর পাহাড় অঞ্চলে বিমল গুরুংয়ের সমর্থন লাভ করেছিল বিজেপি। বিজেপি তার বিনিময়ে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল জয়লাভ করলে তাদের মিলবে বহুকাঙ্খিত পৃথক রাজ্য গোর্খাল্যান্ড। কিন্তু বিজেপি জয় লাভ করার পরেও গোর্খাল্যান্ডের দাবি নিয়ে তেমন কোনো অগ্রগতি হয়নি। হতাশ গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার নেতা বিমল গুরুং এবার বিজেপির এই ‘ভাওতাবাজি’ প্রত্যাখ্যান করে হাত ধরতে চলেছেন শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের।

রাজ্য সরকার তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা শতাধিক মামলা প্রত্যাহার করবে বলে শোনা যাচ্ছে। যদিও এই বিষয়ে নাকি কিছুই জানেন না বিমল গুরুং। তবে তিনি আশাবাদী মামলা প্রত্যাহার হবে। মিরিকে এক জনসভায় যোগ দিয়ে রবিবার একথা জানান বিমল গুরুং। ২০১৭ সালে পৃথক রাজ্যের দাবিতে পাহাড়জুড়ে তাঁর নেতৃত্বেই চলেছিল আন্দোলন। বহু সরকারি সম্পত্তি নষ্ট হয়। পুড়িয়ে দেওয়া হয় সরকারি অফিস, হেরিটেজ স্টেশন, পুলিশের গাড়ি। এক পুলিশ অফিসারকে খুন করার অভিযোগও রয়েছে। সব মিলিয়ে শতাধিক জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু করে রাজ্য পুলিশ। রয়েছে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলাও।

একুশের বিধানসভা ভোটের আগে বিমল গুরুং তৃণমূলের হাত ধরছেন৷ উঠছে তাঁর বিরুদ্ধে করা শতাধিক মামলার কথা। ইতিমধ্যেই রাজ্যের আইন দপ্তর এ বিষয়ে প্রক্রিয়া শুরু করেছে। যা নিয়ে বিরোধীদের তোপের মুখে রাজ্য প্রশাসন। রবিবার গোটা বিষয় নিয়ে গুরুং অবশ্য বলেছেন, তিনি কিছু জানেন না। অবশ্য মিরিকে দলীয় জনসভায় যোগ দিয়ে জনসমর্থন আদায়ে বেশ কিছু কৌশল নেন তিনি। কখনও মঞ্চ ছেড়ে নিজেই চলে আসেন সমর্থকদের মাঝে। নিজেই পড়ান খাদা, আবার কখনও ফল তুলে দেন কর্মী, সমর্থকদের হাতে।
এবারের নির্বাচন বিমল গুরুংয়ের কাছেও বড় পরীক্ষা। মাঝে সাড়ে তিন বছর তিনি ছিলেন পাহাড় ছাড়া। সেই সুযোগে পাহাড়ে নতুন নেতা হয়ে ওঠেন বিনয় তামাং, অনীত থাপারা। পাহাড়ে ফিরে বিমল গুরুং স্পষ্ট করে দিয়েছেন, বিনয়দের সঙ্গে আপোস করে চলবেন না। তিনিই পাহাড়ের অবিসংবাদী নেতা। তা প্রমাণ করতেই মঞ্চ থেকে একাধিক ইস্যুতে আক্রমণ করেন বিনয়, অনীতদের।
সোমবার থেকে পাহাড়ে শুরু হয়েছে বিজেপির ‘‌পরিবর্তন যাত্রা।’‌ গুরুংয়ের কথায়, ‘‌ওদের কর্মসূচি ওরা করবে। তবে বিজেপি যে পাহাড়বাসীকে ধোঁকা দিয়েছে, তা নির্বাচনেই টের পাবে। পাহাড়, তরাই এবং ডুয়ার্সে তৃণমূলই ভাল ফল করবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *