Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email

 হিজাবি মহিলাকে অসম্মান! ‘ভারতীয় রেস্তোরাঁ’ বন্ধ করেদিল বাহরাইন সরকার

NBTV ONLINE DESK

NBTV ONLINE DESK

ভারতীয় ল্যান্টার্ন রেস্তোরাঁ।
ভারতীয় ল্যান্টার্ন রেস্তোরাঁ।

এনবিটিভি ডেস্কঃ বোরখা পরা মহিলাকে প্রবেশ করতে অস্বীকার করার অভিযোগে ভারতীয় ল্যান্টার্ন নামের রেস্তোরাঁ বন্ধ করে দেওয়ার নোটিশ জারি করল বাহরাইন সরকার। ঘটনাটি ঘটে বাহরাইনের রাজধানী মানামার আদলিয়া এলাকায় ভারতীয় ল্যান্টার্ন রেস্টুরেন্টে। কর্ণাটকের হিজাব বিতর্কের আঁচ বিদেশের মাটিতে দেখা গেল।

 প্রসঙ্গত, চলতি বছরের শুরুতে কর্ণাটকে হিজাবি পড়ুয়াদের কলেজে প্রবেশে বাধা দেওয়ার অভিযোগ ওঠে খোদ কলেজ কর্তৃপক্ষর বিরুদ্ধে। এরপরে হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের প্ররোচনায় হিজাবি ছাত্রীদের বিরুদ্ধে আন্দোলন করতে দেখা যায়। সমস্যা গুরুত্বর হয়ে পড়লে পরে হিজাব সমস্যা নিয়ে হাইকোর্ট পর্যন্ত জল গড়ায়। অবশেষে হাইকোর্ট ইউনিফর্ম পরার উপরে রায় দেন। এদিকে হিজাব বিষয়টি সারা দেশ তথা সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে।   

 বাহরাইন পর্যটন মন্ত্রী জানান, যেকোন রেস্তোরাঁ দেশের আইন লঙ্ঘন করে এমন নীতি থেকে দুরে থাকতে হবে। মানুষের বিরুদ্ধে বৈষম্যমূলক আচরণ, বিশেষ করে তাদের জাতীয় পরিচয় সম্পর্কিত কোন সমস্যা হক এমন কিছু দেশের আইন স্বীকৃতি দেয়না।

বৃহস্পতিবার ল্যান্টার্ন-এর ম্যানেজার এক হিজাবি মহিলাকে রেস্তোরাঁর মধ্যে প্রবেশ করতে বাধা দিয়েছিলেন। হিজাবি মহিলাটি এই ঘটনা বাহরাইনের পর্যটন কর্তৃপক্ষর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। শোরগোল পড়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে রেস্তোরাঁ কর্তৃপক্ষ ম্যানেজারকে বরখাস্ত করে বিষয়টি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেন।

এদিন রেস্তোরাঁর কর্তৃপক্ষ অফিসিয়াল ইনস্টাগ্রামে ক্ষমার সুরে লেখেন, “প্রত্যেক ব্যাক্তিকে ল্যান্টার্ন রেস্তোরাতে স্বাগত। দীর্ঘ ৩৫ বছরেরও বেশি সময় ধরে আমরা বাহরাইনের সুন্দর পরিবেশে সমস্ত রকম পরিষেবা দিয়ে আসছি। ল্যান্টার্ন রেস্তোরাঁ সকলের জন্য উন্মুক্ত। একজন ম্যানেজারের খারাপ আচরনের জন্য তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে।”

ভারতীয় রেস্টুরেন্ট ল্যান্টার্ন কর্তৃপক্ষ আশ্বাস দিয়ে বলেন, আগামী দিনে এমন আচরণ দ্বিতীয়বার ঘটবেনা। ল্যান্টার্ন রেস্টুরেন্টে প্রত্যাক ব্যাক্তিকে সু-স্বাগত, কারোর জাতীয়তা কিংবা ধর্মীয় কারনে বাধাপ্রাপ্ত হবে না।

সম্পর্কিত খবর