Bhangar: অর্থের অভাব, স্থানীয় বিডিও-র সহায়তায় ‘স্বাস্থ্য সাথী’ কার্ড নিয়ে বিনামূল্যে চিকিৎসা পেলেন রসিদ

এনবিটিভি ডেস্ক: পথ দুর্ঘটনায় ভেঙেছে পা। অর্থের অভাবে চিকিৎসা করাতে পারছিলেন না। এদিক ওদিক ঘুরে যখন দিশেহারা, তখন মাথায় আসল দুয়ারে সরকারে করা স্বাস্থ্যসাথী কার্ডের আবেদনের কথা। যেই ভাবনা সেই কাজ। আবেদনের রশিদ নিয়ে সঠান হাজির বিডিও সাহেবের কাছে। বিডিও সাহেবের তৎপরতায় বেসরকারি নাসিংহোমে রাতেই বানানো হল স্বাস্থ্যসাথীর কার্ড। স্বাস্থ্যসাথীর কার্ডে চিকিৎসা পাবে রোগী, নিশ্চিত হতেই বিষন্নতার মাঝে ঠোঁটের কোণে হাসি।

ঘটনাটি দক্ষিণ ২৪ পরগণার ভাঙড়ের চড়িশ্বরের। গত বৃহস্পতিবার ষাটোর্ধ রসিদ তরফদার ভোজেরহাট থেকে পা ভ্যানে চড়িশ্বরে নিজের বাড়ি ফিরছিলেন। হঠাৎ সামনের দিক থেকে আসা একটি জেসিবি তাঁকে ধাক্কা মারে বলে অভিযোগ। ঘটনায় পা ভাঙে রসিদের। অর্থের অভাবে চিকিৎসা করাতে পারছিলেন না। এদিনের ভাঙা পায়ের অবস্থার অবনতি হতে থাকলে বাধ্য হয়ে ঘটকপুকুরের একটি বেসরকারি নাসিংহোমে ভর্তি হন। কিন্তু টাকা আসবে পাবে কোথায় থেকে? এই ভাবনা যখন গ্রাস করেছে, তখন মাথায় আসল দুয়ারে সরকার ক্যাম্পের কথা। কদিন আগে চড়িশ্বরে হওয়া দুয়ারে সরকার ক্যম্পে স্বাস্থ্যসাথীর কার্ডের জন্য আবেদন করেছিলেন পরিবারের সদস্যরা। সেই আবেদনের রসিদ নিয়ে সোমবার দুপুরে ভাঙড় ২ বিডিও কার্তিক চন্দ্র রায়ের দারস্থ হন পরিবারের সদস্যরা। বিডিও সাহেব নিজে উদ্যোগ নিয়ে কাশিপুর থানার ওসিকে সঙ্গে নিয়ে রাতেই নাসিংহোমে উপস্থিত হয়ে সেখানেই স্বাস্থ্যসাথীর কার্ড বানিয়ে তাঁদের হাতে তুলে দেন। প্রশাসনিক আধিকারিকদের এমন সহযোগিতায় খুশি রসিদের পরিবার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *