এবার রাজ্য পুলিশের নিয়ন্ত্রণ হাতে চায় বিজেপির শুভেন্দু!ধনকড়ের কাছে নিরাপত্তা কমিশন গঠনের সুপারিশ

নিউজ ডেস্ক : মমতা সরকারের সাংবিধানিক অধিকারে হস্তক্ষেপ চায় পরাজিত বিজেপির নব নেতা শুভেন্দু অধিকারী। এবার রাজ্য পুলিশকে রাজ্য সরকারের হাত থেকে ছিনিয়ে নিতে চান। পশ্চিমবঙ্গে পুলিশকে রাজ্য সরকারের প্রভাব মুক্ত করতে রাজ্যস্তরে একটি নিরাপত্তা কমিশন গঠনের দাবি জানিয়েছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। বুধবার রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের সঙ্গে রাজভবনে সাক্ষাতের সময় এই মর্মে একটি চিঠিও দিয়েছেন তিনি।

 

সুপ্রিম কোর্টের ২০০৬ সালের একটি রায়ের প্রসঙ্গ তুলে ধরে কাছে শুভেন্দু দাবি করেন, ওই নিরাপত্তা কমিশন রাজ্য সরকারের নিয়ন্ত্রণের বাইরে থেকে নিরপেক্ষ ভাবে পুলিশি কার্যকলাপের উপর নজরদারি করবে। রাজ্য বিধানসভার বিরোধী দলনেতা অর্থাৎ তাকে নিজেকেও প্রস্তাবিত ওই কমিশনের অন্তর্ভুক্ত করার দাবি জানান তিনি।

 

বুধবার রাজ্যপালের সঙ্গে এক ঘণ্টারও বেশি সময় রাজভবনে আলোচনা করেন শুভেন্দু। সে সময়ই ওই চিঠি দেন তিনি। শুভেন্দুর বক্তব্য, ২০০৬ সালে প্রকাশ সিংহ বনাম কেন্দ্রীয় সরকারের মামলায় রাজ্যস্তরে এমন নিরাপত্তা কমিশন গঠনের নির্দেশ দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। প্রস্তাবিত নিরাপত্তা কমিশন সম্পর্কে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন, রিবেইরো কমিটি এবং সোরবজি কমিটির সুপারিশগুলিও চিঠিতে উল্লেখ করেছেন তিনি।

 

তিনটি সুপারিশেই রাজ্য বিধানসভার বিরোধী দলনেতাকে রাজ্য নিরাপত্তা কমিশনের সদস্য করার কথা বলা হয়েছিল। পাশাপাশি, রাজ্য পুলিশের ডিজি, সংশ্লিষ্ট হাইকোর্টের কর্মরত বা অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি, লোকায়ুক্তদের অন্তর্ভুক্ত করার কথা ছিল সুপারিশগুলোতে। সুপ্রিম কোর্ট ওই তিন সুপারিশ মেনে নিরাপত্তা কমিশন গঠনের পরামর্শ দিয়েছিল সব রাজ্যকে।

 

কিন্তু রায় ঘোষণার দেড় দশক পরেও এ বিষয়ে রাজ্য সরকার কোনও পদক্ষেপ করেনি বলে অভিযোগ করেছেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু। অন্যান্য রাজ্য বিষয়টি নিয়ে তেমন কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। বিজেপি শাসিত রাজ্য গুলিতে পুলিশ গুন্ডাদের পর্যায়ে আসলেও শুভেন্দু শুধু বঙ্গে নিরাপত্তা কমিশন চান। এ জন্য রাজ্য পালকে সংবিধানের ধরা ১৫৪ ব্যবহার করার আর্জি জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *