মমতাকে আক্রমণের পিছনে বিজেপির চক্রান্ত! সেজন্যই চুপ মোদি শাহ

নিউজ ডেস্ক : নন্দীগ্রামে গত বুধবার বেশ কয়েকজন আক্রমণকারীর দ্বারা শারীরিকভাবে আঘাত পান রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই থেকে তিনি কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ছিলেন গতকাল পর্যন্ত। এখনও তার পা ঠিক হয়নি ফলে তিনি হাঁটতেও পারছেন না। কিন্তু আশ্চর্যজনক ভাবে দেশের একমাত্র মহিলা মুখ্যমন্ত্রী রাজনৈতিক চক্রান্তের শিকার এবং আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকলেও দেশের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী মোদী এবং তার ক্যাবিনেটের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এখনো পর্যন্ত একটি বারের জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থার এবং চিকিৎসার খোঁজ-খবর নেয়নি। এটা নিয়ে উঠছে বিস্তর প্রশ্ন। তৃণমূল কংগ্রেসের তরফ থেকে অভিযোগ করা হচ্ছে বিজেপি চক্রান্ত করে পূর্ব পরিকল্পনা মাফিক এই ঘটনাটি ঘটিয়েছে আর এজন্যই বিজেপি নেতারা উল্টো পাল্টা বলছে, এমনকি প্রধানমন্ত্রী এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নৈতিক সৌজন্যতা এবং ভদ্রতাবোধ এক্ষেত্রে বিসর্জন দিয়েছেন। মোদি এবং অমিত শাহের এমন আশ্চর্যজনক নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ সৌগত রায়।

তৃণমূল কংগ্রেসের তরফ থেকে বিজেপি নেতাদের ইতিপূর্বে দেওয়া আগ্রাসী মন্তব্য নিয়ে নির্বাচন কমিশনের কাছে নালিশ জানানো হয়েছে। গুন্ডামীর পরিভাষা সচরাচর ব্যবহার করা রাজ্যের বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ ইতিমধ্যেই এক জনসভায় জানিয়েছিলেন আগামী ১০ই মার্চ বুধবার বিশেষ কিছু একটা ঘটতে চলেছে। নির্দিষ্ট করে কিছু না জানালেও তার ওই কথাতেই কিছু ইঙ্গিত ছিল বলে জানা যাচ্ছে কারণ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ওপরে নন্দীগ্রামে হামলা ঠিক ১০ তারিখ বুধবারেই ঘটেছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *