Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email

আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে আমেরিকাকে আর পাকিস্তানের ভূমি ব্যবহার করতে দেওয়া হবে না, সাফ জানাল পাকিস্তান

NBTV ONLINE DESK

NBTV ONLINE DESK

FB_IMG_1622296365930

নিউজ ডেস্ক : আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে অভিযান চালাতে মার্কিন সেনাকে পাক সেনাঘাঁটি ব্যবহার করতে দেয়া হবে না। মঙ্গলবার পাকিস্তানের সিনেটে বক্তব্য রাখার সময় এই তথ্য জানিয়েছেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি। এর আগে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও বলেছিলেন, পাকিস্তান আর কখনও অন্যের চাপিয়ে দেয়া লড়াই করবে না।

 

 

সংবাদ সংস্থা এএনআই জানিয়েছে, মঙ্গলবার পাক সিনেটে বক্তব্য রাখেন পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী কুরেশি। বিরোধীদের অভিযোগ উড়িয়ে সেখানে তিনি সাফ জানান, ভবিষ্যতে আফগানিস্তানে অভিযান চালাতে মার্কিন ফৌজকে পাক সেনাঘাঁটি ব্যবহার করতে দেয়া হবে না। পাশাপাশি, প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সরকার পাকিস্তানের মাটিতে মার্কিন ফৌজকে ড্রোন হামলা চালাতে দেবে না বলেও সাফ জানিয়ে দেন তিনি। কুরেশি বলেন, ‘আমি সকলকে আশ্বস্ত করছি যে পাকিস্তান সুরক্ষিত হাতে রয়েছে। আমরা যেটা ভয় করছি তা হল বর্তমান পরিস্থিতিতে (মার্কিন সেনা চলে গেলে) আফগানিস্তানে যে শূন্যতা তৈরি হবে তা ফের দেশটিকে নয়ের দশকের অরাজকতার দিকে ঠেলে দিতে পারে। তবে আমেরিকা সরে গেলেও পড়শি দেশে শান্তি বজায় রাখার উদ্দেশ্যে নিজের কাজ করবে পাকিস্তান।’

 

এদিকে, ওয়াশিংটন থেকে কূটনৈতিক সূত্রে খবর যে বরাবরই মার্কিন সেনাকে নিজেদের ঘাঁটি ব্যবহার করতে দিয়েছে পাকিস্তান। শুধু তাই নয় মার্কিন বিমানগুলির জন্যও আকাশসীমা খোলা রেখেছিল দেশটি। এবারে ও বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের খবরকে পুঁজি করে পাকিস্তানের বিরোধী দলগুলো দাবি করে ইমরান খান সরকার আবার আমেরিকাকে পাকিস্তানের সেনাঘটি ব্যবহারের অনুমতি দিতে যাচ্ছে আফগানিস্থানে সেনা অভিযান চালানোর জন্য। বলা হচ্ছিল, আফগানিস্থান থেকে আসন্ন সেপ্টেম্বরের মধ্যে সব মার্কিন সেনা সরিয়ে নেওয়ার পর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এই এলাকায় নিজেদের প্রভাব বিজয় রাখতে পাকিস্তান সরকারের কাছে তাদের ভূমি ব্যবহার করতে দিতে অনুরোধ করেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে সরকারের প্রবল সমালোচনা শুরু হয়েছিল। কিন্তু ইমরানের খানের সরকার সাফ জানিয়েছে, পাকিস্তান আর কখনও অন্যের হয়ে যুদ্ধ করবে না।

সম্পর্কিত খবর