সতীর্থকে ইফতারের সুযোগ দিতে EPL এ ম্যাচ বন্ধ রাখলেন খেলোয়াড়রা,পরে তার ২ গোলেই জয় পেল লেস্টার সিটি

নিউজ ডেস্ক : দলবদ্ধভাবে খেলার মাধ্যমে খেলোয়াড়দের মধ্যে তৈরি হয় একে অপরের প্রতি সম্মান, তাদের বিশ্বাস এবং জিবন পন্থার প্রতি শ্রদ্ধা। এইভাবেই গড়ে ওঠে একতাবদ্ধতা। আর এমন একতাবদ্ধতার এক উদাহরণ দেখা গেল বিশ্বব্যাপী তুমুল জনপ্রিয় ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচ চলাকালীন। খেলা চলছিল লেস্টার সিটি এবং ক্রিস্টাল প্যালেসের মধ্যে। খেলা চলাকালীন ইফতারের সময় হয়ে যায়। রোজা করে লেস্টার সিটি খেলছিলাম ওয়েসলে ফোফানা। তাকে ইফতারের সুযোগ করে দিতে খেলা বন্ধ করেন দুই দলের খেলোয়াড়রা। এই মানবিক ব্যবহারের জন্য তিনি খেলার পরে ক্রিস্টাল প্যালেসের সমস্ত খেলোয়াড়দের ধন্যবাদ জানান।

 

যখন ফোফানা ইফতার করতে যান সে সময় তাঁর দল লেস্টার সিটি গ্রুপের বিরুদ্ধে এক গোলের ব্যবধানে পিছিয়ে ছিল। তবে ইফতারের পর তিনি নিজেই লেস্টার সিটির হয়ে দুটি গোল করে তার দলের জয় নিশ্চিত করেন। এর সঙ্গে তাঁর দলকে তিনি পরের মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে নিজেদের জায়গা পাকাপোক্ত করার আরো কাছাকাছি নিয়ে গেলেন।

 

খেলা শেষে লেস্টার সিটি মালিক ব্রেন্ডন রজার বিবিসিকে বলেন, দলে কিছু তরুণ খেলোয়াড় আছেন যারা রমজানে সারাদিন কিছু খাওয়া-দাওয়া করেন না। তাদেরকে সময় মতো খাবার নিতে দেওয়া উচিত। তাদের বিশ্বাসের প্রতি তাদের আস্থা তাদের শক্তি যোগায়। কিছুদিন আগেও ফ্রান্সের সঙ্গে তুরস্কের একটি ফুটবল ম্যাচ চলাকালীন তুরস্কের ফুটবলাররা একত্রিতভাবে মাঠে বসে ইফতার করেন। ওই ম্যাচে শক্তিশালী ফ্রান্সকে হারিয়ে জয়লাভ ও করে তুরস্ক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *