দুই মুসলিম দেশের ভ্রাতৃত্বের কাছে হার মানছে ভৌগলিক ব্যবধান,উঠে যাচ্ছে ইরান ইরাকের বর্ডার

 

 

নিউজ ডেস্ক : প্রতিবেশী দুই দেশ ইরাক ও ইরানের মধ্যে চলাচলের জন্য দেশদু’টির নাগরিকদের ভিসা নেবার প্রয়োজন হবে না।ভ্রমের জন্য ভিসার প্রথা বাতিলে সম্মত হয়েছে তেহরান ও বাগদাদ।দেশ দুটি একে অপরের উপর অগাধ বিশ্বাস ও সীমাহীন ভরসা রাখতে পারায় এমন সিদ্ধান্ত বলে জানায় তারা।ইরাকের প্রধানমন্ত্রী মোস্তফা আল-কাদেমী তেহরানে সফররত অবস্থায় এমন ঘোষণা দেয় ইরান। সেখানে তিনি ইরানের বর্তমান প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রইসির সঙ্গে বিভিন্ন বিষয়ে বিস্তর আলোচনা করেন বলে জানা যায়। রোববার রাতে তুরস্কভিত্তিক সংবাদ সংস্থা আনাদুলুর এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য প্রদান করা হয়

 

ইরাকের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে রইসি বলেন, দুই দেশের নাগরিকদের মধ্যে ভিসা ছাড়া চলাফেরা করার সুযোগ ইরাকের প্রধানমন্ত্রীর জন্য উপহারস্বরুপ। তিনি বলেন, এ সুবিধা অনির্দিষ্ট কালের জন্য চালু থাকবে।এদিকে ইতো মধ্যে, যাতায়াত কে আরও সহজ ও স্বাচ্ছন্দময় করতে দেশ দুটির মধ্যে রেল করিডোর স্থাপনের ব্যাপারে উচ্চতর স্তরের কর্মকর্তারা সম্মতি প্রকাশ করে। খুব দ্রুতই এ করিডোর নির্মাণ করা হবে বলে জানান তারা। রেল চলাচল শুরু হলে ইরাক-ইরানের মধ্যে যোগাযোগের এক নতুন যুগের সূচনা হবে।এতে করে দেশ দু’টির জনগন খুব সহজে, কম খরচে ও কম সময়ের মধ্যে ভ্রমণ সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন।

 

ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রইসি বলেন, তেহরান ও বাগদাদের সু-সম্পর্ক আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে শক্তিশালী ভূমিকা রাখবে। ইরাক তেহরানকে অপরিসীম ভালোবাসার বন্ধনে বেঁধেছে বলে জানান ইরাকের প্রধানমন্ত্রী কাদেমী।

সূত্র : ডেইলি ইনকিলাব

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *